অপহরণের ৫ দিন পর পরিবারের কাছে শিশু নিয়ামাত উল্লাহ

অপরাধ জাতীয় জীবনযাপন প্রচ্ছদ বাংলাদেশ

ঢাকা (২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০) : অপহরণের দিন পর পরিবারের কাছে শিশু নিয়ামাত উল্লাহ আপন। শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটা তাকে উদ্ধারের পর রোবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গণমাধ্যমের সামনে নিয়ে আসা হয় তাকে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ জানায়, অপহরণকারী চক্র দীর্ঘদিন ধরে ধরনের অপরাধের সঙ্গে জড়িত। তবে ঘটনায় কাউকেই আটক করতে পারেনি পুলিশ।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর রাজধানীর হাজারীবাগ থানার ঝাউচর এলাকা থেকে শিশু আপনকে অপহরণ করে বরিশালের হিজলা এলাকায় নিয়ে যায় অপহরণকারীরা। মুক্তিপণের টাকা না দিলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আপনের লাশ পাওয়া যাবে বলে তার মাকে হুমকি দেয়া হয়। ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে শনিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে উদ্ধার হয় আপন। আপনের বাবা বেসরকারি সংস্থায় আর মা ব্র্যাকে চাকরি করেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ কমিশনার আজিম উদ্দিন বলেন, তারা মুক্তিপণ দাবি করেন। এবং বিট কয়েনের মাধ্যমে এটি পরিশোধ করতে হুমকি দিয়ে বলে হয় ক্যাশ না হয় লাশ।

ডিবির উপস্থিতির টের পেয়ে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়। তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানায় মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ।

বছরের শিশু নিয়ামত উল্লাহ আপন। অপহরণের দিনের পর মায়ের আঁচলের স্নেহের ছায়ায়। প্রিয় সন্তানকে ফিরে পেয়ে যেনো পুনরায় প্রাণ ফিরে পেলো মা আমেনা বেগম। সাংবাদিকদের জানাচ্ছিলেন, অপহরণের সেই ভয়াবহ ঘটনা।

অপহৃত শিশু আপনের মা আমেনা বেগম বলেন, আশপাশের শিশুরা ছাদে গিয়ে খেলাধুলা করছিল। তারা বললো একটা ছেলে আপনকে ডেকে নিয়ে গেছে। পরে গেটের সামনে থেকে ৩টি ছেলে ওকে নিয়ে গেল। আমি তখন অফিসে। পরে সবাই খোঁজাখুঁজি করেও ওকে আর পেলাম না।

অপহরণের পর কীভাবে কোথায় ছিল, যতটুকু মনে করতে পারছে, ততটুকুই বলছে শিশু আপন।শিশু আপন বলে, আমি বলছি কে আপনারা। তারা বলে আমার বাবার বন্ধু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *