আমেরিকা বাংলাদেশের কভিডসহ অন্যান্য চিকিৎসা সেবা দিতে একশ’টি ভেন্টিলেটর দিবে।”

আন্তর্জাতিক

ঢাকা (১৫ অক্টোবর, ২০২০) : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি বলেছেন,”আমেরিকা বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু রাষ্ট্র।দেশের যেকোন দুর্যোগে আমেরিকা বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে।এবারের কভিড মোকাবেলা করতেও আমেরিকা বাংলাদেশের সার্বিকভাবে নানাখাতে সহায়তা করে যাচ্ছে।এরই ধারাবাহিকতায় আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই আমেরিকা বাংলাদেশের কভিডসহ অন্যান্য চিকিৎসা সেবা দিতে নতুন ও অত্যাধুনিক অন্তত একশ’টি ভেন্টিলেটর বুঝিয়ে দিবে।”

বৈঠকে করোনা সংকট মোকাবেলায় উভয় দেশের বাস্তব অভীজ্ঞতা বিনিময় করা হয় এবং উভয় দেশে কভিড-১৯ এর কারনে প্রাণ দেয়া মানুষদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়।গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বৈঠকে এসময় করোনাকালীন বাংলাদেশের নানা উদ্যোগসমূহ তুলে ধরেন এবং দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিভাবে করোনা মোকাবেলায় দিক নির্দেশনা দিয়েছেন তার বর্ননা দেন। অনুষ্ঠানে আমেরিকার প্রতিনিধিগণ করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশের উদ্যোগসমূহের ভুয়সী প্রশংসা করেন এবং গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর বিচক্ষণ নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করেন।

বৈঠকে আগামীতে ভ্যাক্সিন উৎপাদন শুরু হলে আমেরিকার পক্ষ থেকে বাংলাদেশকে সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দেন ডেপুটি সেক্রেটারি মি.বাইগান এবং বাংলাদেশের পক্ষে দ্রুত ভ্যাক্সিন পেতে আমেরিকা সরকার সব ধরনের সয়াহতা করবেন বলেও জানান তিনি। উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে, বাংলাদেশের স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নিকট দুইটি অতি উন্নত গ্যাস আনালাইজার মেশিন হস্তান্তর করেন ইউএসএ ডেপুটি সেক্রেটারি মি. স্টেফেন এডওয়ার্ড বাইগান ও বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউএসএ এম্বাসাডর মি.আর্ল আর মিলার।

আজ ১৫ অক্টোবর,বৃহস্পতিবার,বেলা ৩ টায়,রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভ্যান্টিলেটর মেশিন ও গ্যাস এনালাইজার মেশিন হস্তান্তর সংক্রান্ত এক বৈঠক শেষে প্রেস ব্রিফিং এ এসব কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, এমপি। বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন আইসিটি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক,এমপি,স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশিদ আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ।যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে সেদেশের ডিপার্টমেন্ট অব স্টেট এর ডেপুটি সেক্রেটারি মি. স্টেফেন এডওয়ার্ড বাইগান,বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউএসএ এম্বাসাডর মি.আর্ল আর মিলারসহ অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *