কোটা আন্দোলনের নেতা রাশেদ আইসিটি মামলায় গ্রেফতার

শিক্ষা

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা: কোটা আন্দোলনের প্লাটফর্ম বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খানকে আইসিটি আইনের মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।
ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপকমিশনার-ডিসি মাসুদুর রহমান গণমাধ্যমকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, আইসিটি আইনের মামলায় রাশেদ খানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ দুপুরে মিরপুর-১৪ এর ভাষানটেক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এর আগে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন গণমাধ্যমকে জানান, মিরপুর-১৪ নম্বরের ভাষানটেক বাজার এলাকার মজুমদার রোডের ১২ নম্বর বাসা থেকে রাশেদ খাঁনসহ তিনজনকে ডিবি পুলিশ তুলে নিয়ে যায়।
অন্য দুজন হলেন- মাহফুজ খান ও সুমন কবীর। তারাও পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক।
এ বিষয়ে ডিসি মাসুদুর রহমান বলেন, তিনজনকে গ্রেফতারের বিষয়টি সঠিক নয়। শুধু রাশেদকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
চাকরিতে কোটাপ্রথা বাতিল করে সরকারি ঘোষণা বাস্তবায়ন না করায় শনিবার বেলা ১১টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে সংবাদ সম্মেলন ডাকে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।
সংবাদ সম্মেলন শুরুর ঠিক আগমুহূর্তে কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এতে পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল্লাহ নূরসহ সাত শিক্ষার্থী আহত হন।
কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে নুরুল্লাহ নূরকে মারধরের সময় তাকে রক্ষা করতে এগিয়ে যান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. জাভেদ আহমেদ। এ সময় হামলাকারীরা তার ওপর চড়াও হয়। এতে তার হাতের একটি আঙুল কেটে যায়।
এদিকে সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে রোববার থেকে সারা দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়-কলেজে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন এবং অবরোধ কর্মসূচি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *