চট্টগ্রামে অর্থ আত্মসাতের মামলায় সাহেদ করিমের চার দিনের রিমান্ড

অপরাধ জীবনযাপন বাংলাদেশ

ঢাকা (১১ অক্টোবর ২০২০) : চট্টগ্রামে অর্থ আত্মসাতের এক মামলায় মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমের চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। এর আগে তাকে গ্রেফতারের আদেশ দেন আদালত।

তিনি বলেন, ‌‘কারোর মিথ্যা পরিচয়ে প্রশাসনের কর্মকর্তারা যেন এসব প্রতারকদের ক্রিয়ানকে পরিণত না হয়, সে খেয়াল রাখতে হবে। তাহলে অন্তত এরপর আরও এক সাহেদ করিমের জন্ম হবে না।’

সাইফুদ্দিন হোসেন আরও বলেন, আমার যা যাবার গেছে কিন্তু আমি চাই যে, করোনাকালে মানুষের জীবন মৃত্যু নিয়ে এই প্রতারক সাহেদ যে ভয়ঙ্কর খেলায় মেতেছিল তার যেন সুষ্ঠু বিচার হয়।

এর আগে চট্টগ্রামের প্রতিষ্ঠান মেগা মোটরসের অর্থ আত্মসাতের মামলায় হাজিরার জন্য আজ দুপুর ১টার দিকে চট্টগ্রাম আদালতে তোলা হয় রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট কেসিএস লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমকে।

তার আগে শনিবার (১০ অক্টোবর) বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে সাহেদকে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে আসা হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ঢাকায় রুট পারমিট পাইয়ে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে গাড়ির যন্ত্রাংশ আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান মেগা মোটরস থেকে ৯১ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে গত ১৩ জুলাই চট্টগ্রাম নগরীর ডবলমুরিং থানায় একটি মামলা হয়।

আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান মেসার্স মেগা মোটরসের আমদানি করা থ্রি-হুইলার ঢাকা সিটিতে চলাচলের রুট পারমিটসহ চলাচলের আনুষাঙ্গিক কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি নিয়ে দেয়ার বিষয়ে আশ্বস্ত করে মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিম এ টাকা আত্মসাত করেন।

এজন্য সাহেদ করিম মেগা মোটরসের মালিক জিয়া উদ্দিন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীরের কাছ থেকে ২০১৭ সালের ২২ জানুয়ারি প্রিমিয়ার ব্যাংকের ঢাকা অ্যাভিনিউ গেট শাখার অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে নগদ ৩০ লাখ টাকা গ্রহণ করেন।

রোববার (১১ অক্টোবর) দুপুর দেড়টার দিকে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার জাহান এ আদেশ দেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী ধৃতিমান আইচ  বলেন, ‘অর্থ আত্মসাতের মামলায় মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত চার দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদেশ দিয়েছেন।’

রিমান্ড আদেশের আগে মামলার বাদী সাইফুদ্দিন হোসেন বলেন, তিনি আদালতের কাছে এমন দৃষ্টান্তমূলক বিচার চান যাতে এইভাবে সরকারের ভাবমূর্তি এবং রাজনৈতিক কোনো রাজনৈতিক দলের ভাবমূর্তি ব্যবহার করে মানুষের সঙ্গে আর কেউ যেন কখনো প্রতারণা করতে না পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *