চট্টগ্রাম সিটি করর্পোরেশন নির্বাচন কাল বুধবার

এক্সক্লুসভি জেলার-খবর বাংলাদেশ

ঢাকা (২৬ জানুয়ারি, ২০২১) :  চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচনের আর কয়েকঘণ্টা বাকি। বুধবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হবে। ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ হয়েছে।

চট্টগ্রামের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুমনী আক্তার বলেন, পুলিশ ও র‌্যাবের পাশাপাশি মহানগরীতে মাঠে নেমেছে ২৫ প্লাটুন বিজিবি। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নির্দেশনায় বিজিবির সদস্যরা মাঠে দায়িত্ব পালন করছেন। ২৫ প্লাটুনের মধ্যে ২২ প্লাটুন দায়িত্ব পালন করবে সিটি করপোরেশন এলাকায়; আর ৩ প্লাটুন থাকবে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে। প্রতি প্লাটুনে ১৬ জন করে বিজিবি সদস্য রয়েছে।

আগামী ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত বিজিবি সদস্যরা মাঠে থাকবে বলে জানান ম্যাজিস্ট্রেট সুমনী আক্তার।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় দায়িত্ব পালন করবে মহানগর পুলিশের ৯ হাজার সদস্য। একই সঙ্গে পুলিশের বিশেষায়িত টিম সোয়াত, র‌্যাব এবং কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের সদস্যরাও মাঠে দায়িত্বে থাকবে।

চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কার্যালয়ের সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা আতাউর রহমান বলেন, ভোট গ্রহণের যাবতীয় প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। আজ (মঙ্গলবার) সকাল থেকে কেন্দ্রে নির্বাচনি সরঞ্জাম পাঠানো হচ্ছে।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ৪১টি ওয়ার্ডে মোট ভোট কেন্দ্র ৭৩৫টি। ভোটার সংখ্যা ১৯ লাখ ৩৮ হাজার ৭০৬ জন। তাদের মধ্যে নারী ভোটার ৯ লাখ ৪৬ হাজার ৬৭৩ জন এবং পুরুষ ভোটার ৯ লাখ ৯২ হাজার ৩৩ জন।

নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার লক্ষ্যে নগরীর মাঠে থাকছে র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ও বিজিবির ১৫ হাজার সদস্য। ভোটকেন্দ্রে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা থাকবে। ভোটাররা নির্ভয়ে ভোট দিতে পারবেন।

মহানগরীর আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশকে সহায়তা করতে মাঠে নেমেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা। সোমবার রাত থেকে চট্টগ্রাম নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডে তাদের টহল দিতে দেখা গেছে। প্রার্থীরা ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে নিয়ে আসার প্রস্তুতি এবং তাদের পোলিং এজেন্টদের দায়িত্ব বুঝিয়ে দিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

মঙ্গলবার সকালে চসিকের রিটার্নিং কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান জানান, আগামীকাল বুধবার চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন। এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোট চলবে। এ কারণে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার লক্ষ্যে নগরীর মাঠে থাকছে র‌্যাব, পুলিশ, আনসার ও বিজিবির ১৫ হাজার সদস্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *