জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার দায়িত্ব নেবে বিএনপি : ড. মোশাররফ

রাজনীতি

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, আগামী দিনে জনগণের অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার দায়িত্ব নেবে বিএনপি। আওয়ামী লীগ যেখানে গণতন্ত্র হত্যা করেছে, জনগণের অধিকার লুণ্ঠন করেছে, সেখানে আগামী দিনে বিএনপিকেই ঘুরে দাঁড়াতে হবে। তিনি আরো বলেন,খন্দকার দেলোয়ার হোসেন ছিলেন বিএনপি’র দুঃসময়ের কান্ডারী । প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনে খন্দকার দেলোয়ার হোসেন অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন।
সোমবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির সাবেক মহাসচিব মরহুম খন্দকার দেলোয়ার হোসেনের ৮ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
খন্দকার দেলোয়ার হোসেন স্মৃতি ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশিষ্ট রাষ্ট্রবিজ্ঞানী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজ উদ্দিন আহমদ। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বিএনপি’র ভাইসচেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, শামসুজ্জামান দুদু, যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাবেক এমপি মেজর আক্তারুজ্জামান, বিশিষ্ট ছড়াকার আবু সালেহ প্রমূখ।
ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, মরহুম দেলোয়ার হোসেন দেশের যেকোন ক্রান্তিকালেই সাহসী ভূমিকা নিয়ে সামনে এগিয়ে গেছেন। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে স্বাধীনতা যুদ্ধেও তার ভূমিকা ছিল অগ্রনায়কের মতোই। যেকোনো গণতান্ত্রিক আন্দোলনে তিনি অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। বিএনপিকে যখনি নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র হয়েছে খন্দকার দেলোয়ার সেখানেই সোচ্চার ভূমিকা রেখেছেন। এক এগারো’র অগণতান্ত্রিক সরকার যখন দেশে অসাংবিধানিক কাজ শুরু করে সেখানে তিনি উচ্চ কণ্ঠে প্রতিবাদ জানিয়েছেন।
ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন আরো বলেন, দেশের ৮০ ভাগ লোকের ভোট ডাকাতি করেছে এই সরকার। জনগণ ভোট দিতে পারলে গণতন্ত্রের বিজয় নিশ্চিত ছিল। কিন্তু সরকার ভোট ডাকাতি করে বিজয়ী হয়েছে ঠিক কিন্তু তাদের নৈতিকতা চরম পরাজয় হয়েছে। ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে জনগণের কাছে আওয়ামী লীগের পরাজয় হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ বলেন, নেতৃত্বের সঠিক নির্দেশনা পেলে বিএনপি আবারো ঘুরে দাঁড়াবে। হতাশ হওয়ার কিছু নেই। নেতা আর কর্মীরা ঐক্য গড়তে পারলে আগামী দিনে আবারো এদেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনবো।
শামসুজ্জামান দুদু বলেন, খন্দকার দেলোয়ার হোসেন সব সময়ই ভেতরে-বাইরে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ছিলেন। যেকোনো সংকটময় সময়ে তিনি বিএনপিকে নব জীবন দিয়েছিলেন। খন্দকার দেলোয়ার গণতন্ত্রের সিংহপুরুষ ছিলেন বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *