টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে বিশ্ব ইজতেমা নির্ধারিত তারিখে হচ্ছে না

আন্তর্জাতিক জাতীয় জীবনযাপন

ঢাকা (২ জানুয়ারি ২০২১) : টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে হওয়া তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমা করোনা মহামারির কারণে বছর নির্ধারিত তারিখে হচ্ছে না বলে জানা গেছে। জানুয়ারির করোনা পরিস্থিতি দেখে তার পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

এদিকে, তাবলিগের লোকজন বিষয়টি নিয়ে বলেছেন, তারা যাতে ফেব্রুয়ারির শেষ কিংবা মার্চের শুরুতে ইজতেমা করতে পারেন, সেজন্য সরকারের কাছে আবেদন করা হয়েছে।

বিষয়ে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক বলছেন, অবস্থা যদি ভালো থাকে, তাহলে হতে পারে। তবে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হলে সেটা কোনো অবস্থাতেই সম্ভব হবে না।

তিনি আরো বলেন, বিশ্ব ইজতেমা হোক সেটা আমরা চাই। আল্লাহর রহমতে যদি পরিস্থিতি ভালো হয়, তাহলে আমরা ইজতেমা করব ইনশাআল্লাহ। কিন্তু চলমান পরিস্থিতিতে তা করার কোনো সুযোহ নেই।

বিষয়ে তাবলিগের মাওলানা ওয়াসিফুল ইসলামের গ্রুপের সাথী তৌহিদুল হক সোহেল জানান, সরকারের সঙ্গে ইজতেমা আয়োজন নিয়ে আলাপআলোচনা চলছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের লোক নিয়েই বিশ্ব ইজতেমা। শুধু বাংলাদেশের মানুষ হলে তো আর বিশ্ব ইজতেমা হবে না। তাই আমাদের পক্ষ থেকে সরকারের কাছে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে, যাতে সে রকম পরিস্থিতি হলেই ইজতেমাটা হয়। সরকার যেভাবে ভালো মনে করে, সেভাবেই করবে।

সূত্র বলছে, করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারির শেষ কিংবা মার্চের শুরুর দিকে বিশ্ব ইজতেমা করার জন্য তাবলিগের দুই গ্রুপ সরকারের কাছে প্রস্তাব দিয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী , ১০ জানুয়ারি প্রথম পর্ব এবং ১৫, ১৬ ১৭ জানুয়ারি দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা হওয়ার কথা ছিল।

বিষয়ে ধর্ম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান বলছেন, আমরা জানুয়ারি পর্যন্ত করোনা পরিস্থিতি দেখে তার পর চিন্তা করব। অবস্থার যদি উন্নতি হয়, সেক্ষেত্রে সবার সঙ্গে আলোচনা করে একটা তারিখ ঠিক করা হবে।

তাবলিগের লোকজনের সঙ্গে ইজতেমার বিষয়ে কথা হয়েছে উল্লেখ করে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী জানান, দুই গ্রুপ হলেও অনেক বড় একটা কাজ। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে ইজতেমায় লোকজন আসে। তাই পরিস্থিতি দেখে এবং ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *