তিস্তা চুক্তি না হলেও অগ্রগতি হবে: কাদের

জাতীয়

নিউজ মিডিয়া ২৪: ঢাকা: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এ বছর তিস্তা চুক্তি না হলেও অগ্রগতি হবে।

শুক্রবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের রুপগঞ্জের ভুলতা ফ্লাইওভার কাজের পরিদর্শন ও ঢাকা-সিলেট জাতীয় মহাসড়কে যানজট নিরসনকল্পে করণীয় নির্ধারণ সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বর্তমান সময়ে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে সম্পর্ক প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের তিক্ততার ক্ষেত্রে বিএনপি বহুলাংশে দায়ী।’

তিস্তা চুক্তির প্রসঙ্গ টেনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘সীমান্ত চুক্তির বাস্তবায়নের মতো দুরূহ কাজ, চ্যালেঞ্জিং কাজ যেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি করে ফেলেছেন, সে তুলনায় এটা কোনো সমস্যাই না। এ সমস্যারও সমাধান হবে।’

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে আজ সকালে পশ্চিমবঙ্গ সফরে গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি আজ বীরভূম জেলার শান্তিনিকেতনে বিশ্বভারতীর সমাবর্তনে অংশগ্রহণ করেন। পরে তিনি সেখানে ‘বাংলাদেশ ভবন’ উদ্বোধন করেন। এ ছাড়া আগামীকাল শনিবার আসানসোলে কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডিলিট ডিগ্রি গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি একসঙ্গে শান্তিনিকেতনে ‘বাংলাদেশ ভবন’ উদ্বোধন করবেন। শান্তিনিকেতনে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিরও অংশ নেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী কলকাতা গেছেন আমি তাঁকে সি-অফ করে এখানে এসেছি। সেখানে নরেন্দ্র মোদি, মমতা ব্যানার্জি থাকবেন। আলাপ-আলোচনা হবে। আমি তো এখানে বসে বলতে পারি না রেজাল্টটা কী হবে? তবে এটা বুঝি, নাহলেও অগ্রগতি হবে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘চুক্তি যেকোনো সময় হতে পারে। আমাদের মধ্যে যে সম্পর্ক আছে, সেই সম্পর্কের আলোকে এই কথাটা বলছি।’

মাদক বিরোধী চলমান বিশেষ অভিযান প্রসঙ্গে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমাদের সবাইকে মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করতে হবে এবং সামাজিকভাবে এর প্রতিরোধ ও সচেতনতা গড়ে তুলতে হবে।

ঈদের আগে তিন দিন ট্রাক, লরি ও ভারী যানবাহন চলাচল সীমিত থাকবে। এসময় ফিটেনেসবিহীন গাড়ি সড়কে না নামাতে শ্রমিক নেতাদের অনুরোধ করেছেন বলে জানান সড়ক ও সেতুমন্ত্রী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-১ (রূপগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য গাজী গোলাম দস্তগীর, নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *