তুর্কি সেনাবাহিনী ইতিহাস সৃষ্টি করেছে: এরদোগান

আন্তর্জাতিক

নিউজ মিডিয়া ২৪: ডেস্ক: উত্তর সিরীয় সীমান্তে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযান শুরু করার কথা জানিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান। তিনি বলেন, সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে তুর্কি সেনাবাহিনী ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। এসময় মানবিজ ও ফোরাত নদীর পূর্ব উপকূল থেকে সন্ত্রাসীদের বিতাড়িত করার প্রতিশ্রুতি দেন তিনি।-খবর হুররিয়াত ডেইলি নিউজের
বৃহস্পতিবার সামরিক ক্যাডেটদের উদ্দেশ্যে দেয়া এক বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। রাজধানী আংকারায় জাতীয় প্রতিরক্ষা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাডেটদের তিনি বলেন, আপনারা শীঘ্রই মানবিজ এবং ফোরাত নদীর পূর্ব উপকূল থেকে তাদের তাড়িয়ে দেবেন।
সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর মাধ্যমে যারা আমাদের দেশকে ঘিরে ফেলতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে তুরস্কের সেনাবাহিনী হচ্ছে সর্বশ্রেষ্ঠ শক্তি।
প্রথম রোজায় ইফতার শেষে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, ২০০৬ সাল থেকে সিরিয়ায় দুটি সফল অভিযান চালিয়ে তুরস্কের সেনাবাহিনী ইতিহাস সৃষ্টি করেছে। এর আগে সিরিয়ায় ইউফ্রেটাস শিল্ড ও ওলিভ ব্রাঞ্চ নামের দুটি অভিযান চালায় তুর্কি সেনাবাহিনী।
কয়েক মাস ধরে ফোরাত নদীর পূর্ব উপকূলে একটি অভিযান পরিচালনার কথা বলে আসছেন এরদোগান। সন্ত্রাসী গোষ্ঠী পিকেকের শাখা ওয়াইপিজিকে উৎখাত করতে এ অভিযান পরিচালনা করা হবে। তুরস্ক, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন পিকেকে-কে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর তালিকাভুক্ত করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *