প্রায় হাজার দর্শকের সামনে নেচেছিলেন মাধুরী!

বিনোদন

নিউজ মিডিয়া ২৪:বিনোদন ডেস্ক : মাধুরী লেখেন, “এই হুকস্টেপটা এতটা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল, আমি শুনেছি দর্শক এই গানটা রিপ্লে করার দাবি করত সিনেমা হলে। এমনকী স্ক্রিনে পয়সাও ছুঁড়ত বলে শুনেছি। সবাই আমাকে মোহিনী বলেই ডাকতে শুরু করে। এই গানের সঙ্গে কত স্মৃতি যে জড়িয়ে রয়েছে।”

১৯৮৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘তেজাব’। ১২টি ফিল্মফেয়ার নমিনেশন ছিল এই ছবির। অনিল কাপুর জিতেছিলেন সেরা অভিনেতার ফিল্মফেয়ার আর মাধুরী সেরা অভিনেত্রীর প্রথম ফিল্মফেয়ার নমিনেশন পেয়েছিলেন এই ছবিতে। দক্ষিণে তামিল ও তেলুগুতে এই ছবির রিমেকও হয়। ছবির সঙ্গীত পরিচালক ছিলেন লক্ষ্মীকান্ত প্যারেলাল ও কোরিওগ্রাফার ছিলেন সরোজ খান। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

মাধুরী লেখেন, “এই হুকস্টেপটা এতটা জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল, আমি শুনেছি দর্শক এই গানটা রিপ্লে করার দাবি করত সিনেমা হলে। এমনকী স্ক্রিনে পয়সাও ছুঁড়ত বলে শুনেছি। সবাই আমাকে মোহিনী বলেই ডাকতে শুরু করে। এই গানের সঙ্গে কত স্মৃতি যে জড়িয়ে রয়েছে।”

১৯৮৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘তেজাব’। ১২টি ফিল্মফেয়ার নমিনেশন ছিল এই ছবির। অনিল কাপুর জিতেছিলেন সেরা অভিনেতার ফিল্মফেয়ার আর মাধুরী সেরা অভিনেত্রীর প্রথম ফিল্মফেয়ার নমিনেশন পেয়েছিলেন এই ছবিতে। দক্ষিণে তামিল ও তেলুগুতে এই ছবির রিমেকও হয়। ছবির সঙ্গীত পরিচালক ছিলেন লক্ষ্মীকান্ত প্যারেলাল ও কোরিওগ্রাফার ছিলেন সরোজ খান। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *