রোগী না দেখলে ডাক্তারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশ

নিউজ মিডিয়া ২৪:ঢাকা : ঢাকা: রোগী না দেখলে ডাক্তারদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

শুক্রবার (৩ এপ্রিল) করোনাভাইরাসের সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কনফারেন্স রুম থেকে অনলাইনে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, অনেকে ক্লিনিক ও প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ করে রেখছেন। নিরাপত্তার কথা বলে রোগী দেখছেন না। এরকম খবর আমরা পাচ্ছি। এমন একটি সময়ে চিকিৎসকদের সেবা দেওয়া থেকে পিছপা হওয়া উচিত না। আপনারা আগের মতো রোগী দেখা শুরু করুন। তা না হলে পরবর্তীতে কঠোর পদক্ষেপ নিতে পিছপা হবো না।

উল্লেখ্য, নভেল করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার ভয়ে চেম্বারে বসছেন না অনেক চিকিৎসক; অনেক জায়গায় টেকনিশিয়ানরা কর্মস্থলে না থাকায় রোগ নির্ণয়ের পরীক্ষাও বন্ধ আছে বলে প্রায় রোগীদের কাছ থেকে অভিযোগ আসছে।

এই প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রাইভেট হাপসাতাল কাজ কম করছে। ক্লিনিক ও চেম্বারগুলো অনেকাংশে বন্ধ আছে। আমরা সামাজিক মাধ্যমে জানতে পারছি…… আমরা নিজেরাও দেখতে পাচ্ছি।

তিনি বলেন, কাজেই এ সময়ে আপনাদের পিছপা হওয়াটা যুক্তিসঙ্গত নয়। মানুষের পাশে দাঁড়ান, মানুষকে সেবা দিন। আমরা কিন্তু এটা লক্ষ্য করছি। পরবর্তীকালে যা যা ব্যবস্থা নেওয়ার আমরা কিন্তু সেসব ব্যবস্থা নিতে পিছপা হব না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, কুয়েত-মৈত্রী হাসপাতাল, শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালকে কোভিড-১৯ রোগীদের জন্য ডেডিকেটেড করা হয়েছে।

ঢাকায় আইইডিসিআর ছাড়াও আইপিএইচ, আইসিডিডিআর বি, আর্মড ফোর্সেস ইন্সটিটিউট অব প্যাথলজি, শিশু হাসপাতাল, বিএসএমএমইউ, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরী মেডিসিন এন্ড রেফারেল সেন্টার,ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনাভাইরাস নির্ণয়ে আরটি-পিসিআর টেস্ট শুরু হয়েছে বলেও জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আশা করি সকলে পরীক্ষা করার জন্য আসবেন। পরীক্ষা করলে নিজেও নিরাপদে থাকবেন, জানতে পারবেন, আপনার অবস্থাটা। সেই সাথে সাথে আপনার পরিবারকেও সুরক্ষিত রাখতে পারবেন। পরীক্ষায় কোনো দোষ নাই, সামাজিক কোনো বাধা নাই। এ জিনিসটি পরীক্ষার মাধ্যমে করোনাভাইরাসকে চিহ্নিত করে আমরা আস্তে আস্তে এটাকে নির্মূল করতে পারব।

গণমাধ্যম মৃত্যু সংবাদ নিয়ে অতিরঞ্জিত ও মিথ্যা তথ্য দিচ্ছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, আপনারা পজেটিভ নিউজ করবেন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, প্রধানমন্ত্রী যা বলছেন তা প্রচার করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *