লুৎফুজ্জামান বাবরের বিরুদ্ধে দুর্নীতি মামলা আগামী ৩০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

অপরাধ জীবনযাপন বাংলাদেশ

ঢাকা (১৪ অক্টোবর, ২০২০) : বিএনপি জোট সরকারের সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি লুৎফুজ্জামান বাবরের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া দুর্নীতি মামলা আগামী ৩০ দিনের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারিক আদালতকে হাইকোর্টের এ আদেশ পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তি করতে বলা হয়েছে।

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, সাত কোটি পাঁচ লাখ ৯১ হাজার ৮৯৬ টাকা জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জনের তথ্য গোপন ও মিথ্যা তথ্য প্রদান করায় দুদকের সহকারী পরিচালক মির্জা জাহিদুল আলম ২০০৮ সালের ১৩ জানুয়ারি রমনা থানায় মামলা দায়ের করেন।

পরে দুদকের উপপরিচালক রুপক কুমার সাহা তদন্ত করে ২০০৮ সালের ১৬ জুলাই অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলাটি ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এ সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে চলতি বছরের ১ মার্চ ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৪২ ধারা মতে পরীক্ষা করা হয়। এদিকে আসামিপক্ষ সাফাই সাক্ষী দেবে না, তবে লিখিত বক্তব্য দেবে বলে সময় নেন। এভাবে মোট তিন বার লিখিত বক্তব্য না দিয়েও বাবরের পক্ষে সময় নেওয়া হয়। পরে  হাইকোর্টে তারা আদালত পরিবর্তনের আবেদন করেন।

কিন্তু আদালত পরিবর্তনের উপযুক্ত কারণ না থাকায় হাইকোর্ট বাবরের আবেদন খারিজ করে দিলেন। আগামী ১৫ নভেম্বর বিচারিক আদালতে এ মামলার পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য রয়েছে।

মামলা বিচারিক আদালত পরিবর্তনের আবেদন সরাসরি খারিজ করে বুধবার (১৪ অক্টোবর) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের নেতৃত্বাধীন ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহজাবিন রাব্বানী দীপা। এছাড়াও বাবরের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী পারভেজ হোসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *