শিশুকে ধর্ষণ ও হত্যার দায় স্বীকার

জেলার-খবর

নিউজ মিডিয়া ২৪: নরসিংদী : নরসিংদীর মনোহরদীতে পঞ্চম শ্রেণির স্কুলছাত্রী আউলিয়া আক্তারকে (১২) ধর্ষণ ও হত্যার দায়ে অভিযুক্ত সজল মিয়াকে গ্রেফতার করেছে র্যাব। সোমবার দুপুরে নরসিংদীর সার্কিট হাউজে এক সাংবাদিক সম্মেলনে র্যাব-১১ জানায়, রোববার সন্ধ্যায় মনোহরদী উপজেলার বীরগাওঁ গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

র্যাব-১১ এর ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক শেখ আশিক বিল্লাহ জানান, নিহত আউলিয়া আক্তার বীরগাঁও গ্রামের বাসিন্দা ও দক্ষিণ চরমান্দালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী ছিল। গত ২৬ জুন সন্ধ্যায় সে অভিযুক্ত সজলের বাড়ির সামনে দিয়ে তার নানাবাড়ি যাচ্ছিলো। পথে তাকে স্থানীয় একটি বেত ক্ষেতের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করেন সজল। এ সময় শিশুটি চিৎকার করায় সজল তাকে গলাটিপে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যান। পরে শিশুটির পরিবারের লোকজন বহু খোঁজাখুঁজির পর ওই স্থানে তার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে মনোহরদী থানা পুলিশ এসে তার লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাবু মিয়ার দায়ের করা মামলার ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে সজলকে গ্রেফতার করে র্যাব। তিনি আরও জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সজল ধর্ষণ ও হত্যার দায় স্বীকার করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে র্যাব-পুলিশসহ নিহত শিশুর পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *