দুই জেলায় বজ্রপাতে ৫ জনের মৃত্যু

জেলার-খবর

নিউজ মিডিয়া ২৪:  কিশোরগঞ্জ : হবিগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জ জেলায় বজ্রপাতে ১২ বছরের এক কিশোরসহ ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। দু’জেলাতেই আজ বিকালে এ প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। হবিগঞ্জে নিহত তিনজনের মধ্যে ১২ বছরের এক কিশোর রয়েছে। সে বানিয়াচং উপজেলার হিয়ালা আগলা বাড়ির ফুল মিয়ার ছেলে মঈন উদ্দিন।অপর দুই ব্যক্তি পেশায় কৃষক ছিলেন। তারা হলেন- লাখাই উপজেলার স্বজনগ্রামের নুফুল মিয়া (৪৫) ও আপন মিয়া (৩৫)।

লাখাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) দেওয়ান মোঃ নুরুল ইসলাম জানান, বিকালে ওই দুই কৃষক বাড়ির পার্শ্ববর্তী হাওরে ধান সংগ্রহের কাজে ব্যস্ত ছিলেন। এ সময় বৃষ্টির সাথে হঠাৎ বজ্রপাত ঘটলে তারা গুরুতর আহত হন।
পরে পার্শ্ববর্তী জমিতে কর্মরত শ্রমিকরা তাদেরকে লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত আপন মিয়ার শরীর বজ্রপাতে ঝলসে গেছে। অপরদিকে বানিয়াচং উপজেলার হিয়ালা আগলা বাড়ির ফুল মিয়ার ছেলে মঈন উদ্দিন বাড়ির পার্শ্ববর্তী মাঠে খেলা করছিল। এ সময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়। বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মোজাম্মেল হক এর সত্যতা নিশ্চিত করেন।

কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরে মারা যাওয়া দুই ব্যক্তিও ধান কাটার সময় বজ্রপাতের কবলে পড়েন। বিকালে উপজেলার মাইজদর কাটাবন ও বাহেলবালী হাওরে ধান কাটতে গিয়েছিলেন মো. আব্দুর রাশিদ (৩৫) ও তৌহিদ মিয়া (২৭)। বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই মারা যাপন আব্দুর রাশিদ।অন্যদিকে বিকাল ৪টার দিকে বাহেরবালি হাওরে গুরুতর আহত হয়ে তৌহিদ মিয়ার মৃত্যু হয়। রাশিদের পৈত্রিক নিবাস নেত্রকোণা জেলার বারহাট্টায়। আর তৌহিদ মিয়া বাজিতপুর উপজেলার বাহেরবালি গ্রামের বাসিন্দা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *