ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক দুই দেশকেই ধরে রাখতে হবে:বৈঠক শেষে মমতা

জাতীয়

নিউজ মিডিয়া ২৪: ডেস্ক: বাংলাদেশ ফিরে যাওয়ার আগে আজ শনিবার সন্ধ্যায় দক্ষিণ কলকাতার অভিজাত হোটেল তাজ বেঙ্গলে মুখোমুখি হলেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দুজনের মধ্যে প্রায় এক ঘণ্টার কাছাকাছি বৈঠক হয়।

বৈঠক শেষে বেরিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের মধ্যে যখন দেখা হয়, তখনই কথা হয়। আমরা চাই ওনারা বারংবার আমাদের এখানে আসুন, আর আমরাও চাই বারবার বাংলাদেশে যেতে। যেটা ওনারাও চান। ভারত ও বাংলাদেশ দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক দুই দেশকেই ধরে রাখতে হবে।

মমতা বলেন, এরই মধ্যে আমাদের রাজ্যে বাংলাদেশ ভবনের উদ্বোধন হয়েছে। আমরা বঙ্গবন্ধুর নামে একটি মিউজিয়াম করতে চাই। সেটা ওনারা পারমিশান দিলে কাজ শুরু হবে। ওনারা ভালো আছেন, ভালো করছেন, ভালো করবেন। আমাদের কাছে ওনাদের চাহিদার কিছু নেই। বাংলাদেশ ও ইন্ডিয়ার মধ্যে বাউন্ডারি সীমারেখা থাকলেও আমরা এক প্রাণ। দুই দেশ উন্নতির লক্ষ্যে কাজ করে চলেছে। বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের লক্ষ্যে এগিয়ে যাওয়ায় আমাদের সম্মান বেড়েছে। এই সমস্ত নানা বিষয় নিয়ে আমাদের মধ্যে কথা হয়েছে।

তবে তিস্তা পানি বণ্টন চুক্তি প্রসঙ্গে শেখ হাসিনার সঙ্গে কোনো আলোচনা হয়েছে কিনা সেই প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সূত্র জানায়, দুই বাংলার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক নানা বিষয় নিয়ে এদিন অল্প বিস্তর আলোচনা হয় দুই নেত্রীর মধ্যে।

এদিন বৈঠক শেষে ভারতীয় সময় রাত ৮টা ১৫ মিনিট নাগাদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দক্ষিণ কলকাতার হোটেল ত্যাগ করেন। রাত ৯টা নাগাদ কলকাতার দমদমের নেতাজি সুভাষ চন্দ্র আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বাংলাদেশ বিমানের ভিভিআইপি ফ্লাইট নম্বর বিজি ১৫০৭ বিমানে তিনি ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *